এমভি আবদুল্লাহ জাহাজে অভিযানে সোমালি পুলিশ ও বিদেশি নৌসেনারা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক-
আন্তর্জাতিক ডেস্ক- আন্তর্জাতিক ডেস্ক-
প্রকাশিত: ৪:৫৭ পূর্বাহ্ন, ১৯ মার্চ ২০২৪ | আপডেট: ২:৩৮ পূর্বাহ্ন, ১৭ এপ্রিল ২০২৪

বাংলাদেশি পতাকাবাহী এমভি আবদুল্লাহ জাহাজ এবং ২৩ জিম্মি নাবিকদের জলদস্যুদের হাত থেকে মুক্ত করতে সোমালিয়ার পুলিশ এবং বিভিন্ন দেশের নৌবাহিনীর সদস্যদের একটি দল অভিযানের প্রস্তুতি নিচ্ছে। এই তথ্যটি জানিয়েছে সোমালিয়ার পুন্টল্যান্ড অঞ্চলের পুলিশ।

সোমবার (১৮ মার্চ) এক প্রতিবেদনে এই খবরটি জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স। পুন্টল্যান্ড সোমালিয়ার একটি আধা-স্বায়ত্তশাসিত অঞ্চল। যেখানে অনেকগুলো জলদস্যু দলের ঘাঁটি রয়েছে।

ওই এলাকার পুলিশ বাহিনী এক বিবৃতিতে জানায়, এমভি আবদুল্লাহকে দখল করে থাকা জলদস্যুদের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক নৌবাহিনীর অভিযানের একটি পরিকল্পনা তারা জানতে পেরেছে। সে কারণে তারা সতর্ক অবস্থানে রয়েছে এবং অভিযানে অংশ নিতেও প্রস্তুত রয়েছে।

এর আগে, গত রোববার এমভি আবদুল্লাহ দখল করে রাখা জলদস্যুদের জন্য ‘খাত’ নামের এক ধরনের মাদক নিয়ে যাওয়ার সময় একটি নৌযান জব্দ করার কথা জানিয়েছিল পান্টল্যান্ড পুলিশ।

প্রতিবেদনে বলা হয়, ভারতীয় কমান্ডোরা জলদস্যুদের নিয়ন্ত্রণে থাকা মাল্টার পতাকাবাহী জাহাজ এমভি রুয়েনে অভিযান চালিয়ে ১৭ নাবিককে উদ্ধার করা ও ৩৫ জলদস্যুকে আটকের পর এমভি আবদুল্লাহয় অভিযানের এই পরিকল্পনা করা হয়েছে।

এ বিষয়ে ভারতের নৌবাহিনীর কাছ থেকে রয়টার্স মন্তব্য চাইলে কোনো সাড়া পাওয়া যায়নি।

মোজাম্বিক থেকে ৫৫ হাজার টন কয়লা নিয়ে আরব আমিরাত যাওয়ার পথে গত ১২ মার্চ ভারত মহাসাগরের সোমালি জলদস্যুদের কবলে পড়ে এমভি আবদুল্লাহ। জলদস্যুরা জাহাজটির নিয়ন্ত্রণ নিয়ে ২৩ নাবিকের সবাইকে জিম্মি করে। নাবিকরা সবাই বাংলাদেশি।