নরসিংদীতে ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী সুমন মিয়াকে পিটিয়ে হত্যা

নরসিংদী প্রতিনিধি-
নরসিংদী প্রতিনিধি- নরসিংদী প্রতিনিধি-
প্রকাশিত: ১২:৪২ পূর্বাহ্ন, ২৩ মে ২০২৪ | আপডেট: ৭:০৭ পূর্বাহ্ন, ২৩ জুন ২০২৪

নরসিংদীর রায়পুরা উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রচারণায় যাওয়ার সময় তালা প্রতীকের ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী সুমন মিয়াকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে। তার প্রতিপক্ষ চশমা প্রতীকের প্রার্থী আবিদ হাসান রুবেলের কর্মী-সমর্থকদের বিরুদ্ধে হত্যার অভিযোগ উঠেছে।

বুধবার (২২ মে) সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ইসমাইল হোসেন রাজিব ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী সুমন মিয়ার মৃত্যুর বিষয়টি সাংবাদিকদের নিশ্চিত করেন। আগামী ২৯ মে রায়পুরা উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ভোটগ্রহণ করা হবে।

সুমন মিয়ার কর্মী-সমর্থক ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বুধবার সুমন মিয়া কর্মী-সমর্থকদের নিয়ে উপজেলার চরাঞ্চলে গণসংযোগে যান। সুমনের গাড়িবহর পাড়াতলী ইউনিয়নের মিরেরকান্দী এলাকায় পৌঁছে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী আবিদ হাসান রুবেলের সমর্থকদের মুখোমুখি হয়। তখন উভয় প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দেয় এবং একপর্যায়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। তখন গুলি শব্দ শোনা যায়। সংঘর্ষে সুমন মিয়া গুরুতর আহত হন। পরে পুলিশি প্রহরায় অ্যাম্বুলেন্সে করে তাকে রায়পুরা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসা হয়। হাসপাতালের চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

সুমন মিয়ার মৃত্যুর খবরে হাসপাতালে ছুটে আসেন নরসিংদী-৫ আসনের সংসদ সদস্য রাজিউদ্দিন আহমেদ রাজু। তার মৃত্যুতে রায়পুরায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। সুমন মিয়া চরসুবুদ্ধি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নাসির উদ্দিন নাসুর ছেলে।

তাৎক্ষণিকভাবে এ ঘটনার ব্যাপারে পুলিশের বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।

রায়পুরা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. খান নুরউদ্দিন মো. জাহাঙ্গীর বলেন, ওই ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থীকে মৃত অবস্থায় হাসপাতালে আনা হয়। তার নাক ও মুখ দিয়ে রক্ত বের হয়েছে। মূলত তাকে আঘাত করে মারা হয়েছে।